আজঃ সোমবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

ভোট না হওয়া পর্যন্ত ইউপির দায়িত্বে বর্তমান চেয়ারম্যান-মেম্বাররাই

প্রকাশিতঃ April 20th, 2021, 6:53 pm , |


রাজনগর বার্তা রিপোর্ট : করোনাভাইরাসের কারণে নির্বাচন করতে না পারায় দীর্ঘায়িত হচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের দায়িত্ব। এ বিষয়ে ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসকদের চিঠিও দিয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জাগো নিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘পরবর্তী নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান চেয়ারম্যান-মেম্বাররা ইউনিয়ন পরিষদের দায়িত্বে থাকবেন। এই বিষয়ে আমরা জেলা প্রশাসকদের কাছে নির্দেশনাও পাঠিয়েছি।’

করোনাভাইরাসের কারণে নির্বাচন করতে না পারায় দীর্ঘায়িত হচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের দায়িত্ব। এ বিষয়ে ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসকদের চিঠিও দিয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জাগো নিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘পরবর্তী নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান চেয়ারম্যান-মেম্বাররা ইউনিয়ন পরিষদের দায়িত্বে থাকবেন। এই বিষয়ে আমরা জেলা প্রশাসকদের কাছে নির্দেশনাও পাঠিয়েছি।

তফসিল ঘোষণা করেও করোনাভাইরাসের কারণে প্রথম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনসহ সব ধরনের নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। প্রথম ধাপে ৩৭১ ইউপির ভোটের তফসিল ঘোষণার পর করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় গত ১ এপ্রিল এসব নির্বাচন স্থগিত করা হয়। এরপর নির্ধারিত সময়ে এসব নির্বাচন আয়োজন করা সম্ভব নয় বলে ৯ এপ্রিল স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিবকে জানায় ইসি।

প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ছিল ১৮ মার্চ, যাচাই ১৯ মার্চ, মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৪ মার্চ আর ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারিত ছিল ১১ এপ্রিল।

দেশে প্রায় সাড়ে চার হাজার ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে। ২০১৬ সালে ২২ মার্চ থেকে জুন পর্যন্ত ছয় ধাপে চার হাজারের বেশি ইউপি চেয়ারম্যান পদে দলীয় ও সংরক্ষিত মহিলা ও সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে নির্দলীয় প্রতীকে ভোট হয়।

২০০৯ সালের স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইনে ২৯ ধারায় পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের কার্যকাল বিষয়ে বলা হয়েছে, প্রথম সভা অনুষ্ঠানের তারিখ থেকে পাঁচ বছর পরিষদের মেয়াদ থাকবে। পরিষদ গঠনের জন্য কোনো সাধারণ নির্বাচন ওই পরিষদের জন্য অনুষ্ঠিত পূর্ববর্তী সাধারণ নির্বাচনের তারিখ হতে পাঁচ বছর পূর্ণ হওয়ার ১৮০ দিনের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। দৈব-দুর্বিপাকজনিত বা অন্য কোনো কারণে নির্ধারিত ৫ বছর মেয়াদের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব না হলে সরকার লিখিত আদেশ দ্বারা, নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত বা অনধিক ৯০ দিন পর্যন্ত যা আগে ঘটবে, সংশ্লিষ্ট পরিষদকে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ক্ষমতা দিতে পারে। এসব নির্বাচনের ক্ষেত্রে দৈব-দুর্বিপাক এর আইন ব্যবহার করছে নির্বাচন কমিশন।

সৌজন্য : জাগো নিউজ 


এই বিভাগের আরো খবর

মতামত দিন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
আক্তার হোসেন সাগর

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মোঃ শহীদ বকস

প্রধান উপদেষ্টাঃ
সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন

উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্যঃ
আকলু মিয়া চৌধুরী
আউয়াল কালাম বেগ
এম. রহমান লতিফ

সম্পাদক কর্তৃক সেন্ট্রাল রোড, রাজনগর, মৌলভীবাজার থেকে প্রকাশিত ও প্রচারিত।
মোবাইলঃ ০১৭১৫-৪০৫১০৪
Email: [email protected] | [email protected] (সম্পাদক)


Developed by - Great IT
error: Content is protected !!