Logo

কুলাউড়ায় দীর্ঘদিন ধরে গৃহবধূকে উ ত্য ক্ত করার অভিযোগে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে দিলেন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ মার্চ 2০২4 | ৯৮০জন দেখেছেন
রাজনগর বার্তা রিপোর্ট ::

Image

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় এক গৃহবধুকে উত্যক্ত করার অভিযোগে ছোটই মিয়া (৫১) নামে একজনকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন স্থানীয়রা। মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার জয়চণ্ডী ইউনিয়নের কামারকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, জয়চণ্ডীর কামারকান্দি এলাকার কয়েছ মিয়া ওরফে ছোটই মিয়া দীর্ঘদিন থেকে একই এলাকার এক গৃহবধূকে উত্যক্ত করে আসছেন। প্রায় রাতে ছোটই মিয়া ওই গৃহবধূর বাড়িতে গিয়ে তাকে ডাকাডাকি করেন এবং টিনের চালে ইটপাটকেল ছুঁড়েন। জরাজীর্ণ ঘরের জানালা ভেঙে কয়েকদিন ছোটই তার ঘরেও প্রবেশ করেছেন। এসব বিষয় নিয়ে এলাকায় একাধিকবার সালিশ বৈঠকও হয়েছে। 

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ছোটই মিয়া ওই গৃহবধূর ঘরের জানালা ভেঙে প্রবেশ করে গৃহবধূকে ধরে ধস্তাধস্তি করলে গৃহবধূ চিৎকার শুরু করেন। গৃহবধূর চিৎকার শুনে বাড়ির লোকজন জড়ো হয়ে ছোটই মিয়াকে আটক করে মারধর করেন। পরে পুলিশ মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করে।

স্থানীয় বাসিন্দা প্রবীণ মুরব্বি মখলিছ মিয়া, বাদশা মিয়া, আনোয়ারুন, লোকমান মিয়া, রাজু মিয়া, বদরুন বেগমসহ কয়েকজন জানান, পার্শ্ববর্তী বাড়ির ছোটই মিয়া প্রায় রাতে ওই গৃহবধূর ঘরের জানালা ধরে টানাটানি করেন। অনেকদিন তারা দৌড়িয়েও দিয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে গৃহবধূর ঘরে প্রবেশ করে তাকে উত্যক্ত করলে বাড়ির লোকজন ছোটইকে আটক করে রাখেন। পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

জয়চণ্ডী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৮নং ওয়ার্ড সদস্য মো. নূর মিয়া জানান, খবর পেয়ে তিনি পুলিশসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে ছোটই মিয়াকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করেন।

তিনি আরও বলেন, দীর্ঘদিন থেকে ছোটই মিয়া ওই গৃহবধূকে উত্যক্ত করে আসছেন। বিষয়টি নিয়ে একাধিক বিচার-বৈঠক হয়েছে। একপর্যায়ে আর্থিক জরিমানা করেও তাকে সতর্ক করা হয়েছিলো।

কুলাউড়া থানার এসআই মো. হাবিবুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় ছোটই মিয়াকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে ছোটই মিয়া চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 



আরও খবর